জার্মানির মূল্যস্ফীতি পাঁচ দশকের সর্বোচ্চ উচ্চতায়

বিজ নিউজ ডেস্ক : জার্মানিতে ক্রমবর্ধমান রয়েছে বিভিন্ন পণ্যের দাম। ফলে মে মাসে দেশটিতে মূল্যস্ফীতির হার গত পাঁচ দশকের কাছাকাছি উচ্চতায় পৌঁছেছে। ভোক্তামূল্য সূচকের ওপর ভিত্তি করে প্রাথমিক এ তথ্য প্রকাশ করেছে দেশটির পরিসংখ্যান অফিস। খবর ডয়চে ভেলে।
ফেডারেল পরিসংখ্যান অফিস ডেসটাটিস জানিয়েছে, গত মাসে জার্মানির বার্ষিক মূল্যস্ফীতি ৭ দশমিক ৯ শতাংশে উন্নীত হয়েছে। এটি চলতি বছরের এপ্রিলে রেকর্ড সর্বোচ্চ হারের তুলনায়ও প্রায় এক-দশমাংশ বেশি। এ হার দুই জার্মানির একত্র হওয়া এবং ১৯৭৩-৭৪ সালের শীতকালে জ্বালানি তেল সংকটের পর সর্বোচ্চ।
এপ্রিলে ইউরোপের বৃহত্তম অর্থনীতিতে মূল্যস্ফীতি ৭ দশমিক ৪ শতাংশে উন্নীত হয়েছিল। সে সময় গত বছরের একই সময়ের তুলনায় জ্বালানির দাম ৩৮ দশমিক ৩ শতাংশ এবং খাদ্যের দাম ১১ দশমিক ১ শতাংশ বেড়েছিল।
কয়েক মাস ধরেই জার্মানিতে মূল্যস্ফীতি ঊর্ধ্বমুখী রয়েছে। গত ফেব্রুয়ারিতে এ হার ৫ দশমিক ১ শতাংশে পৌঁছায়। ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের পর মার্চে এ হার ৭ শতাংশে উঠে যায়। মাসভিত্তিক হিসাবে মে মাসে দেশটিতে পণ্যের দাম দশমিক ৯ শতাংশ বেড়েছে।
একটি পৃথক প্রতিবেদনে পরিসংখ্যান অফিস জানিয়েছে, উচ্চ মূল্যস্ফীতির কারণে চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় জার্মানদের প্রকৃত আয় ১ দশমিক ৮ শতাংশ কমে গিয়েছে। যদিও তাদের বেতন ৪ শতাংশ বেড়েছে।
দেশটির অর্থমন্ত্রী ক্রিশ্চিয়ান লিন্ডনার বলেন, আমাদের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার এখন মূল্যস্ফীতির বিরুদ্ধে লড়াই করা। উচ্চ মূল্যস্ফীতি আমাদের অর্থনীতিতে বিশাল ঝুঁকি তৈরি করেছে। এজন্য যেকোনো ধরনের অর্থনৈতিক সংকট সৃষ্টির আগেই মূল্যস্ফীতিকে কমিয়ে আনতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.